একই ছবিতে ডিক্যাপ্রিও এবং ব্র্যাট পিট, আশাবাদী পরিচালক কুইন্টন টারান্টিনো

‘ওয়ান্স আপন এ টাইম ইন হলিউড’এর শ্যুটিং এখনো শুরুই হয়নি, কিন্তু এর পরিচালক কুইন্টন টারান্টিনো ইতোমধ্যেই এই চলচ্চিত্র নিয়ে বেশ উত্তেজিত এবং আশাবাদী। গত সোমবার সনি পিকচার্সের সিনেমাকন প্রেজেন্টেশানে তিনি বলেন, ‘পল নিউম্যান এবং রবার্ট রেডফোর্ড জুটির পর লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও এবং ব্র্যাট পিট জুটি হতে যাচ্ছে ইতিহাসের অন্যতম শক্তিশালী জুটি।” বলাই বাহুল্য, লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও এবং ব্র্যাট পিট ‘ওয়ান্স আপন এ টাইম ইন হলিউড’এর অন্যতম প্রধান দু’টি চরিত্রে অভিনয় করতে যাচ্ছেন।

অনুষ্ঠানে ব্র্যাড পিট অনুষ্ঠানে উপস্থিত না থাকলেও ছিলেন ডি ক্যাপ্রিও। তিনিও চলচ্চিত্রটি নিয়ে বেশ উচ্চাশা ব্যক্ত করেন এবং চলচ্চিত্রটির স্ক্রিপ্ট নিয়ে বলেন, “টারান্টিনোর লেখা এবং পরিচালনা করা অন্যতম শ্রেষ্ঠ স্ক্রিপ্ট”। যদিও কাহিনী কি নিয়ে হবে, সে ব্যাপারে খোলাশা করে কিছু জানানো হয় নি, তবে কাহিনী যে ১৯৬৯ সালের ম্যানসন ফ্যামিলি মার্ডার নিয়ে, সে ব্যাপারে মোটামোটি সবাই নিশ্চিত।

shutterstock_editorial_6622600b_huge-Horizontal
চার্লস ম্যানসন

চার্লস ম্যানসন এবং তার অনুগত সহচারীরা তৎকালীন সময়ে হলিউডের ত্রাসে পরিণত হয়েছিলো। আকর্ষণটা নিজেদের দিকে নিতে প্রথমেই তারা টার্গেট করে বিখ্যাত পরিচালক রোমান পোলনস্কিকে। চার্লস ম্যানসন তার একান্ত অনুগত ৪ জনকে পাঠায় এই মিশনে। রোমান পোলনস্কি তখন ঘরে ছিলেন না কিন্তু আটমাসের অন্তসত্ত্বা স্ত্রী বিখ্যাত অভিনেত্রী শ্যারন ট্যাটেসহ আরো তিনজনকে হত্যা করে যাদের মধ্যে একজন হলিউডের সেলিব্রেটি হেয়ারস্টাইলার এবং একজন লেখকও ছিলেন। তবে এই হত্যা নাকি এর পরবর্তী সময়ে হলিউডে যে পরিবর্তন হয়েছে, তা নিয়ে চলচ্চিত্রটির গল্প এগুবে তা নিয়েও নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না। উল্লেখ্য রোমান পোলনস্কির স্ত্রী শ্যারন ট্যাটের ভূমিকায় অভিনয় করবেন আরেক সেনসেশন মারগট রোবি।

margotrobbietarantino-1‘ওয়ান্স আপন এ টাইম ইন হলিউড’এর ধরণ নিয়ে টারান্টিনো বলেন এর ধরণ এবং নির্মাণশৈলী অনেকটা তার আরেক মাস্টারপিস ‘পাল্প ফিকশন’ এর মতোই হবে। ২০১৯ সালের আগস্টের ৯ তারিখ, শ্যারন ট্যাটের ৫০তম মৃত্যুবার্ষিকীতে চলচ্চিত্রটি মুক্তি দেওয়া হবে বলে আশা করা হয়।

Photo Credit : Shutterstock