কিংবদন্তি চিত্রগ্রাহক আনোয়ার হোসেনের মৃত্যু

কিংবদন্তি চিত্রগ্রাহক ও মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন আর নেই। সেই বাংলাদেশের জন্মের আগে থেকে তিনি হাতে ক্যামেরা তুলে নিয়েছেন। তাঁর ক্যামেরায় উঠে এসেছে মহান মুক্তিযুদ্ধ, মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী বাংলাদেশ। ওই সময়ের অবস্থা চিন্তা করলেই কেমন অবাক হতে হয় যে, একটা দেশের মাত্র জন্ম হলো, মৌলিক চাহিদাগুলোর পাশাপাশি চলচ্চিত্রের ‘স্বীয়’ একটা ধারা বা রীতি সর্বোপরি একটা দেশের সংস্কৃতিও যে শক্ত ও সফলভাবে গড়ে তোলা প্রয়োজন, এই মানুষগুলো তখন থেকেই তা অনুধাবন করে কাজ করে এসেছেন।

‘সূর্যদীঘল বাড়ি’, ‘এমিলের গোয়েন্দা বাহিনী’, ‘নদীর নাম মধুমতি’, ‘চিত্রা নদীর পাড়ে’র মতো কালজয়ী সব চলচ্চিত্রের চিত্রগ্রাহক ছিলেন তিনি।

একের পর এক অসাধারণ সব কাজ করে বাংলাদেশকে কেবল চলচ্চিত্রের সোনালী যুগই উপহার দেননি, বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের ছোট্ট ইতিহাসকে করেছেন সমৃদ্ধ ও মজবুত।

কিংবদন্তী আনোয়ার হোসেনের মৃত্যুতে ‘চিটাগং শর্ট’ এর পক্ষ তার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়েছেন সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক শারাফাত আলী শওকত। তাঁরা বলেন, আনোয়ার হোসেনের মতোন গুনীমানুষ এদেশে জন্মেছিলেন বলেই দেশের স্বাধীনতাকে নিয়ে গর্ব করা যায়। আমরা বুক ফুলিয়ে বলতে পারি, আমাদের একজন আনোয়ার হোসেন আছেন। বাংলাদেশের একজন আনোয়ার হোসেন আছেন।

ছবিঃ Rashed Zaman, বেলায়াত হোসেন মামুন