সিনেমা জনসংযোগে ব্র্যান্ড ফোরাম গোল্ড অ্যাওয়ার্ড ‘দেবী’র

‘বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম অ্যাওয়ার্ড’-এ সিনেমা জনসংযোগে (পিআর) সেরা পুরস্কার অর্থাৎ গোল্ড এবং নতুন এজেন্সির ক্যাম্পেইনিং বিভাগে ‘দেবী’ পেয়েছে ব্রোঞ্জ পদক।

IMG_0155-900x274.jpgবাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম কাজ করে দেশের এবং দেশে কাজ করা বিদেশি ব্যবসায়ী বা ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান নিয়ে। বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের অনেক ধরণের কাজের মধ্যে ‘বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম অ্যাওয়ার্ড’ বেশি পরিচিত। তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ভরা এই ব্র্যান্ড ফোরাম প্ল্যাটফর্ম থেকে কোনো সিনেমার প্রচারণার জন্য পুরস্কার পাওয়ার ঘটনা এবারই প্রথম। সরকারি অনুদান এবং অভিনেত্রী জয়া আহসানের প্রতিষ্ঠান সি-তে সিনেমা প্রযোজিত ছবিটি হয়েছে তুমুল জনপ্রিয়। ভালো ছবি হয়েছে বলেই মানুষের মুখে মুখে ছড়িয়েছে ছবিটির কথা। কিন্তু বর্তমান সময়ে শুধু মুখের কথায় হয় না, প্রয়োজন হয় ডিজিটাল মিডিয়া, পিআরসহ বিভিন্ন মাধ্যমের ক্যাম্পেইনিং। পণ্যের বিক্রি, জনপ্রিয়তা, বিভিন্ন মাধ্যমে বিপণন পরিকল্পনায় সেরা দেশি-বিদেশি ব্র্যান্ডকে বছর ঘুরে পুরস্কৃত করা হয় ব্র্যান্ড ফোরাম প্ল্যাটফর্ম থেকে।

দর্শকদের কাছে ‘দেবী’ ছবির খবরটি বার বার, বিভিন্ন উপায়ে ও কৌশলে পৌঁছে দেওয়ার কাজটি করেছে ‘পার্পলবট’ নামের একটি প্রতিষ্ঠান।


দেবী সিনেমার জন্য এই প্রতিষ্ঠান থেকে মার্কেটিং কনসালটেন্ট টিমের প্রধান হিসেবে ছিলেন রুম্মান রশীদ খান। তিনি বলেন, এই পুরস্কারটি কারো একার না। পার্পলবট এজেন্সি হয়তো পুরস্কারটি গ্রহণ করেছে। তবে এই পুরস্কারটির মূল দাবীদার জয়া আহসান ও তার সি-তে সিনেমা টিম। জয়া আহসান ও আমার নেতৃত্ব সবাই নিজের মনে কওে যেভাবে কাজ করেছে তা অবিশ্বাস্য। ধন্যবাদ, দেবী চলচ্চিত্রের পরিচালক অনম বিশ্বাসসহ সকল শিল্পী, কলাকুশলী, পরিবেশক, হল মালিক, সাংবাদিক ভাই-বোনেরা, সকল সহযোগী প্রতিষ্ঠান, ‘দেবী’ চলচ্চিত্রের ভক্ত-দর্শক সহ সবাইকে। এই পুরস্কারটি সবার। এবারের বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম অ্যাওয়ার্ডে ‘দেবী’ ছবির বিপণন কৌশল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছে জনসংযোগ, ইনট্রিগেটেড ক্যাম্পেইনিং (সংহত প্রচার), নতুন এজেন্সির সেরা ক্যাম্পেইনিং এবং ডিজিটাল- এই চারটি বিভাগে।