৮ দেশের ২১ চলচ্চিত্র নিয়ে ৫ম চিটাগং শর্ট ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের অফিসিয়াল সিলেকশন তালিকা প্রকাশ

চলতি বছরের ১লা জুন থেকে শুরু হয় চট্টগ্রামের আলোচিত চলচ্চিত্র উৎসব চিটাগং শর্ট ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের ফিল্ম জমাদান পর্ব। আরলি বার্ড, রেগুলার ও এক্সটেন্ডেড তিনটি ধাপে দেশ বিদেশ থেকে ফিল্ম জমা নেয়া শেষ হয় সেপ্টেম্বরে। বিচারকদের প্রদর্শন ও বিচার কার্য শেষে গতকাল ৩১ অক্টোবর প্রকাশিত হয় চিটাগং শর্ট ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ২০২০ এর অফিসিয়াল সিলেকশন তালিকা। এ তালিকায় স্থান করে নেয়া চলচ্চিত্রগুলোই আগামী জানুয়ারীতে প্রদর্শিত হবে ফেস্টিভ্যালের মূল আয়োজনে। প্রায় ১৭টি দেশ থেকে জমাকৃত চলচ্চিত্রের সংখ্যা প্রায় শতাধিক। তন্মধ্য থেকে নির্বাচিত হলো, শাওলিন শাওনের ‘পাপ’ (বাংলাদেশ), পাভেল পালের ‘চাঁদের বুড়ি’ (ভারত), নাফিসা হোসাইনের ‘এ নাইট’স টেল’ (বাংলাদেশ), শাহাদাত সেতুর ‘ইউ’ (বাংলাদেশ), আহমেদ হিমুর ‘নামগিজা জুমাং’ (বাংলাদেশ), হোসাইন রাবেঈ এর ‘ডেডওয়াটার’ (ইরান), আদিত্য অগ্নিহোত্রির ‘ডেমোক্রেসি’ (ভারত), সৌমিত্র সিং এর ‘দ্য ওয়ালেট’ (ভারত), শ্রীরাজ রাজিবের ‘সেকেন্ড প্রাইজ’ (ভারত), প্রিয়ামা গোস্বামীর ‘ডেথ অফ এন অডিয়েন্স’ (ভারত), গনজালো গুয়াজারডোর ‘পেপার বোটস’ (ইথিওপিয়া), ত্রিশা নন্দীর ‘ভাসান’ (ভারত), হাসনাত সোহানের ‘সাম এনশায়ান্ট ট্রিস’ (বাংলাদেশ), জাহিদ গগনের ‘প্রেম পুরাণ’ (বাংলাদেশ), মাশরুর পারভেজের ‘দ্য ডগ’স ইল্যুশন’ (বাংলাদেশ), আসিফ জামিলের ‘এনিম্যালস’ (বাংলাদেশ), আবদুল্লাহ শাহিনের ‘ক্লীটস’ (তুর্কী), জিশনু ক্রিশনান এর ‘ডিলাপিডেটেড ওয়েল’ (ভারত), এমিলিয়া রুইজের ‘টু ফিল ইউর ব্রোকেন আর্মস’ (স্পেইন), এন্ড্রু স্কটের ‘হর্ণস অব কলকাতা’ (নিউজিল্যান্ড), সালমান আলমের ‘নিটেড বিলিফস’ (পাকিস্তান)।


ছবি নির্বাচন বিষয়ে ফেস্টিভ্যাল পরিচালক শারাফাত আলী শওকত বলেন, ফেস্টিভ্যালের সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত নন এমন একদল চলচ্চিত্র বিশারদ এই ফেস্টিভ্যালের জুরি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তাঁরা চলচ্চিত্রের গল্প, নির্মাণ কৌশল, অভিনয়, কারিগরি দক্ষতা ও সৃষ্টিশীলতা বিচারে শত শত চলচ্চিত্র থেকে এই চলচ্চিত্রগুলো নির্বাচন করেছেন। আশাকরি পঞ্চমবারের মত চট্টগ্রামের চলচ্চিত্রপ্রেমীরা আবারো একই হল-এ বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন স্বাদের চলচ্চিত্র উপভোগ করতে পারবেন চিটাগং শর্ট ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের মাধ্যমে।