সুপারস্টার নিয়ে ঝগড়াঃ আমাদের বাংলা সিনেমা

সারাক্ষণ আমরা ঝগড়ায় মেতে আছি। মেতে আছি কে কার চেয়ে বড় সুপার স্টার এই তর্ক নিয়ে। তর্ক ও ঝগড়া করে বাংলা সিনেমার সুদিন ফিরিয়ে আনার উন্মাতাল চেষ্টা চলছে।

সবাই সবার চেয়ে বড় হয়ে যাচ্ছে চাপার জোরে। কেবল বাংলা সিনেমাটাই ছোট ছোট হতে হতে মারা যাচ্ছে ।

নায়ক বা নায়িকার মধ্যে কে বড় সুপার স্টার সেটা নিয়ে একটা সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি বড় হয় না। নায়ক বা নায়িকা সিনেমার একটা অংশ মাত্র। একজন যত বড় অভিনেতাই হোক না কেন, তাকে একজেন পরিচালকের কাছে যেতে হয়। ভালো পরিচালক ছাড়া অভিনেতাদের কাজ দেখানোর সুযোগ নাই।

অন্য দিকে, অনেক ভালো পরিচালকও দর্শককে সন্তুষ্ট করতে পারে না। লাগে মন মাতানো গল্প। সেই রকম গল্প তৈরি না করতে পারলে সিনেমা হল দর্শকে কখনই ভরবে না। দর্শককের মন ভরানোর মতো গল্প তৈরি করতে পারলে সিনেমা হল দর্শকে ভরে যাবে।

তারপর লাগে একজন ভালো চিত্রগ্রাহক। সিনেমার গল্পটাকে সিনেমার ঢংয়ে বলার মতো সৃজনশীল ক্ষমতা থাকা লাগে সেই লোকটার। তার জন্য কারিগরি জ্ঞানের পাশাপাশি থাকা লাগে সৃজনশীলতা।

আমরা গল্প বলার জন্য শটের পর শট পরিকল্পনা করি। কিন্তু সেই শটে কী শব্দ শুনবে দর্শক তা নিয়ে প্রায় সময়ই ভাবি না। বাংলা সিনেমায় সাউন্ড ডিজাইনার নাই। অথচ সারা দুনিয়ায় সিনেমায় সাউন্ড ডিজাইনার অবশ্যই থাকবে। শব্দ সিনেমার অর্ধেক গল্প বলে।

প্রোডাকশন ডিজাইনার বলে কোন ব্যক্তি আমাদের সিনেমায় কাজ করেন না। অথচ সারা দুনিয়ার সব সিনেমায় একজন প্রোডাকশন ডিজাইনার থাকে।

আমাদের সব কাজ করে দেন একজন এডিটর।

আমাদের কালারিস্ট লাগে না।

আমাদের ভিএফএক্স এক্সপার্ট লাগে না।

আমাদের সাউন্ড ডিজাইনার লাগে না ।

আমাদের প্রোডাকশন ডিজাইনার লাগে না।

এমনকি আমাদের সিনেমার মার্কেটিংও লাগে না। কারণ এই সবের জন্য আমাদের কোন বাজেটই নাই।

কেবল নায়ক নায়িকা দিয়ে আমরা সিনেমা সুপার হিট বানাতে চাই।

যখন ইন্টারনেট ছিল না, তখন দর্শককে কেবল নায়ক নায়িকা দেখিয়ে মুগ্ধ করা যেত। এখন দর্শক তার ঘরের টিভিতে বিশ্ববিখ্যাত সব সিনেমা দেখে ফেলেছে এবং প্রতিদিন দেখছে।

এই দর্শককে কেবল নায়ক নায়িকা দেখিয়ে মুগ্ধ করা যাবে না।

আমাদের জেলায় জেলায় সিনেপ্লেক্স নাই। ডিজিটাল সিনেমা চালানোর মতো সিনেমা হল নাই। সিনেমা হল আছে তো এসি নাই, বসার সিটটা পর্যন্ত ভাঙ্গা। দুর্গন্ধে সিনেমা হলে টেকা যায় না।

অথচ আমরা সারাক্ষণ ঝগড়ায় মেতে আছি।সবাই নিজের পছন্দের নায়ককে বড় বানাচ্ছি। যেন নায়ক দিয়ে সিনেমা উদ্ধার হয়ে যাবে। ওদিকে বাংলা সিনেমার দাফন কাফন হয়ে যাচ্ছে।


চলচ্চিত্রকার শাহজাহান শামীম এর ফেসবুক পোস্ট